How To Check Originality of A Mobile

  • আপনার হাতের মোবাইলটি কি অরিজিনাল?

একটি মোবাইল ক্রয় করার পরে আমাদের মনের মদ্ধে এই ধরনের প্রশ্ন জেগে থাকে। আমরা ভেবে থাকি মোবাইলটি কিনে আমি ঠকে গেলাম নাতো?

আমার মোবাইলটি অরিজিনাল কিনতে পারলাম নাকি ডুপ্লিকেট মোবাইল কিনলাম। এই ধরনের সঙ্কার মধ্যে পরে থাকি।
আমরা অনেকেই হয়তো জানি না যে কিভাবে অরিজিনাল এবং ডুপ্লিকেপ মোবাইল চেনা যায়।

তাই আজকের ব্লগের মাধ্যমে আপনাদের সাথে সেয়ার করবো যে কি কি পদ্ধতি অবলম্বন করলে অরিজিনাল এবং ডুপ্লিকেট মোবাইল চেনা সম্ভব।

প্রথম পদ্ধতিঃ

  • অরিজিনাল না ডুপ্লিকেট সেটি কি আসলেই চেনা সম্ভব?

 How To Check Original Mobile।।অরিজিনাল মোবাইল চেনার উপায়।
How To Check Original Mobile।।অরিজিনাল মোবাইল চেনার উপায়।

হ্যাঃ অবশ্যই চেনা সম্ভব। অরিজনাল মোবাইল চেনার অনেক গুলো উপায় অাছে আজকে আমি আপনাদের সাথে কয়েকটি উপায় নিয়ে আলোচনা করবো।
বর্তমানে বাংলাদেশে যে নতুন নতুন ফোন লন্চ করতেছে সেই ফোন গুলোর মধ্যে দুই ভাবে মোবাইল ফোন গুলো বাংলাদেশের বাজারে আসতেছে।

১.অফিসিয়াল।
২.আন অফিসিয়াল।

  • অফিসিয়াল আবার কি?

অফিসিয়াল বলতে সহজ করে বলতে গেলে কোন দেশের মধ্যে কোন পন্য বা প্রডাক্ট বিক্রি করার জন্য সরকারকে যে কর বা ট্যাক্স প্রদান করা হয়। এবং ঐ ট্যাক্স প্রদান করার পরে সরকারের হতে কোন পন্য বা প্রডাক্ট বিক্রির যে অনুমতি সরকার কতৃক প্রদান করা হয়। যার অনুমুতি প্রদান সাপক্ষে সরকারের অফিসিয়াল ডাটা বেজে ঐ পন্যের তথ্য সংরক্ষন করা হয়। যা পরবর্তিতে অফিসিয়াল হিসেবে গন্য করা হয়।

  • অফিসিয়াল চিনবো কিভাবে?

মোবাইল ফোন ক্রয় করার পরে মোবইল ফোনের বক্সের নিচের দিকে দুটি IMEI
নাম্বার দেখবেন সেই নাম্বার খাতায় নোট করে নিবেন নোট করার পরে আপনাদের মোবাইলের মেসেজ অপশনে যাবেন যাওযার পরে টাইপ করবেন বড হাতের KYD টাইপ করার পরে যে IMEI নাম্বার খাতায় নোট করেছেন সেই নামারের যে কোন একটি নাম্বার বসিয়ে দিবেন।
বসানোর পরে ১৬০০২ নাম্বারে সেন্ট করবেন।

উদাহরণঃ
KYD<>IMEI AND SENT 16002

উপরের পদ্ধতি অনুসরন করে মেসেজটি সঠিক ভাবে প্রেরন করার কিছু সময় পরে আপনাদের মোবাইল ফোনে একটি মেসেজ আসবে।

এই পন্যটির তথ্য বিটি,আর,সি এর ডাটাবেজে পাওয়া গেছে।

উপরে প্রদর্শিত লেখাটির মতো যদি আসে তাহলে বুঝবেন যে আপনার হাতের মোবাইল ফোনটি অরিজিনাল এবং অফিসিয়াল।
এতক্ষন আপনারা যানলেন যে অফিসিয়াল মোবাইল এবং আন অফিসিয়াল মোবাইল ফোন সম্পর্কে।

দ্বিতীয় পদ্ধতিঃ

এখন আপনাদের সামনে যে পদ্ধতিগুলো তুলে ধরার চেষ্টা করবো সেগুলে হলো মোবাইল ভিক্তিক। একেকটি মোবাইলের অরিজনাল এবং ডুপ্লিকেপ চেনার একেক ধরেনের পদ্ধতি রয়েছে।

বর্তমান বাংলাদেশের বাজারে প্রচলিত কয়েকটি টপ লেবেলের মোবাইল ফোনের অরিজনাল এবং ডুপ্লিকেট চেনার পদ্ধতি তুলে ধরবো।

  • Oppo

বর্তমান বাংলাদেশের বাজারে টপ লেবেলের মোবাইল ফোনের তালিকায় রয়েছে Oppo মোবাইলের নাম। এই মোবাইলটি অরিজিনাল না ডুপ্লিকেট চেনার জন্য নিচের প্রদর্শিত কোড গুলো টাইপ করলে যদি সঠিক তথ্য প্রদর্শিত হয় তাহলে বুঝতে পারবেন যে মোবাইল ফোনটি অরিজিনাল।

কোডঃ ১

*#6776#

কোডঃ ২

*#808#

উপরের কোড গুলো মোবাইলের ডায়াল প্যাডে টাইপ করার সাথে সাথে নতুন কিছু অপসন আসবে সেখানে আপনাদের মোবাইলের সকল তথ্য দেওয়া থাকবে যদি অাপনাদের মোবাইলের বাহ্যিক তথ্যের সাথে সেখানের তথ্যের মিল থাকে তাহলে বুঝতে পারবেন মোবাইলটি অরিজিনাল।

  • Xiaomi

শাওমি মোবাইলটি বাজারের সেরা কিছু মোবাইলের মধ্যে অন্যতম একটি স্থান দখল করে নিয়েছে। এবং সেই সাথে এই পন্যের প্রচুর পরিমানে ডুপ্লিকেপ কপি বের হয়েছে। তাই অরিজিনাল না ডুপ্লিকেপ চেনা বড়ই মুসকিল।

নিচের কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করে শাওমি মোবাইলের অরিজিনাল এবং ডুপ্লিকেট চিনতে পারবেন।

প্রথমে অপনারা মোবাইলের IMEI নাম্বার বের করে নিবেন IMEI নাম্বার বের করার পরে গুগলে যাবেন যাওয়ার পরে টাইপ করবেন

IMEI CHECKER

টাইপ করার পরে গুগলের প্রথমে একটি ওয়েব সাইট সো করবে IMEI ডট ইনফো নামে সেই সাইটে প্রবেশ করবেন করার পরে সেখানে Enter Your IMEI নামের ঘরে অাপনাদের IMEI নাম্বারটি দিবেন।

দেয়ার পরে নিচের চেক বাটনে ক্লিক করবেন। করার সাথে সাথে যদি মোবাইল অরিজিনাল হয় তাহলে মোবাইলের সকল সঠিক তথ্য চলে অাসবে আর যদি ফোনটি ডুপ্লিকেট হয় তাহলে সঠিক তথ্য আসবেনা।

  • SAMSUNG

বিশ্বের নাম্বার ওয়ান ব্রান্ডের মোবাইল গুলোর মধ্যে স্যামসাং অন্যতম একটি নাম। বর্তমানে স্যামসাং মোবাইলের ও অনেক কপি ফোন বাজারে অাসতেছে তাই এই মোবাইলের অরিজিনাল এবং ডুপ্লিকেট বোঝা অনেকটা কষ্টকর। আপনারা নিচের দেয়া পদ্ধতি গুলো ট্রাই করে দেখলে নিঃসন্ধেহে স্যামসাং এর অরিজিনাল মোবাইলটি চিনতে পারবেন।

কোডঃ

*#0*#

উপরে দেওয়া কোডটি স্যামসাং মোবাইলের ডায়াল প্যাডে ডায়াল করার সাথে সাথে অনেক গুলো নতুন অপসোন চলে আসবে সেখানে আপনাদের মোবাইলের সকল তথ্য থাকবে এবং Test Mobile নামের কিছু অপসোন দেখবেন সেখানে ক্লিক করার পরে যদি কুকুর ছানা আসে তাহলে বুঝবেন যে আপনার মোবাইলটি অরিজিনাল।

পাঠকের উদ্দেশেঃ

আজকের এই ব্লগের মাধ্যমে আপনাদের সামনে তুলে ধরলাম কিভাবে অরিজিনাল এবং ডুপ্লিকেপ মোবাইল চেনা যায়। আপনারা অবশ্যই আমার আজকের এই ব্লগটি পরে উপকৃত হবেন। যদি আমার লেখার মাঝে কোন ভুল হয়ে থাকে তাহলে অনুগ্রহপূর্বক ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।

                         পরিশেষে সকলকে ধন্যবাদ

Comments 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *